বাধন রায়, ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ

ঝালকাঠির কাঠালিয়া উপজেলার শৌলজালিয়া ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডের পঞ্চানন্দ কাঠালিয়া সদর এবং শৌলজালিয়া ইউনিয়নের সিমান্তবর্তি একটি খাল বন্ধ করে রাখাকে নিয়ে জটিলতায় এলাকাবাসী আবেদনের প্রেক্ষিতে উক্ত সমস্যা নিরসনে কাঠালিয়া উপজেলার সুযোগ্য সুপ্রিয় উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব সুফল চন্দ্র গোলদার মহোদয়ের সরজমিন পরিদর্শন পরবর্তি নির্দেশে আজ খালকে অবমুক্ত করেন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মাহমুদ হোসেন রিপন।খালটি বিষখালি নদি হয়ে দক্ষিন দিকে বড় কাঠালিয়া এবং উত্তর দিকে চারআনি খালের সাথে সংযোগ ছিল যাহা নুতন করে আবার নব্যতা ফিরে পেল। উভয় ইউনিয়নের প্রায় ২০০/৩০০ একর সম্পত্তি মালিকদের দীর্ঘ ২০/৩০ বছরের প্রত্যাশা পূরণের পাশাপাশি তাদের ফসলি জমি প্রান ফিরে পাবে।

এসময় উভয় ইউনিয়নের সদর দফাদার আঃসাত্তার শৌলজালিয়া ইউনিয়নের সন্মানিত ইউপি সদস্য মোঃখবির উদ্দিন খান, মহল্লাদার মোঃআবদুস সামাদ মোল্লা এবং এলাকাবাসী উপস্থিত ছিলেন। ইউপি চেয়ারম্যান বলেন আমি কৃতজ্ঞচিত্তে অভিনন্দন এবং ধন্যাবাদ জানাই কাঠালিয়া উপজেলার সুযোগ্য, সুপ্রিয়, জনবান্দব, আপোষহীন উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব সুফল চন্দ্র গোলদার স্যারকে এ মহতি উদ্যোগ এবং জনগনের দাবির প্রতি সহনশীল হয়ে সরজমিনে পরিদর্শন করে এ অবমুক্ত করার সিদ্ধান্ত দেয়ার জন্য।