শেখ সাগর আহমেদ রামপাল প্রতিনিধি:

বাগেরহাট জেলার রামপাল উপজেলার বাইনতলা ইউনিয়ন এর ৩নং দূর্গাপুর গ্রামের দিনমজুর শেখ নাসির( ৬০) এর ছেলে শেখ সোহেল রানার ডান পায়ে ২০১৪ সালের মার্চ মাসে হাড়ের টিউমার ধরা পড়ে।

তখন থেকে এই নিউজ করা পর্যন্ত চিকিৎসা খরচ বাবদ তাদের প্রায় ১০ লক্ষ টাকা ব্যায় হয় যা পুরাটাই মানুষের সহযোগিতায় তারা এ পযন্ত এসেছেন।

সোহেল রানা বলে আমি আবারও পড়াশোনা করতে চাই আমি আবারও হাটতে চাই। ২০১৪সালে আমি ৮ম শ্রেনিতে পড়তাম আমার এই অসুস্থ তার মধ্যে দিয়ে পড়ে আমি এস এস সি পাশ করি। এর পর আর পড়তে পারিনি অর্থ ও অসুস্থতার কারনে এখন আমার পা এ অপারেশন করা লাগবে। অপারেশন করতে না পারলে আমার পা টি কেটে বাদ দিতে হবে তাই আপনারা একটু আমায় সহযোগিতা করুন যাতে আমি আবার সাভাবিক ভাবে চলতে পারি ও পড়ালেখা করতে পারি। এ ব্যাপারে শেখ অজেদ আলী (ইউপি সদস্য) বলেন সোহেল আমার এলাকার একজন মেধাবী ছেলে।তার বাবা একজন দিনমজুর।

সোহেল দীর্ঘ দিন ধরে পা য়ে হাড়ের টিউমার নিয়ে ভুগছে আমরা আছি তার পাশে ও আপনার এই অসহায় পরিবার এর পাশে এসে দাড়ান। তার বিষয়ে জানতে চাইলে কল করুন। তার বাবার সাথে কথা হলে তিনি বলেন অামি দিন আনি দিন খাই তারপরও আল্লাহর রহমতে আপনাদের সহযোগিতায় আমার ছেলের চিকিৎসা করে এ পযন্ত এসেছি।এখন শেষ একটা অপরেশন করতে হবে অনেক অর্থের দরকার যা আমার কাছে নাই আমি আপনাদের সকলের সহযোগিতা কামনা করছি।