হবিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন ২০২১ হবিগঞ্জ জেলার বানিয়াচং উপজেলার জলাবনে(সোয়াম ফরেস্ট) অনুষ্টিত হয়েছে। মুজিব বর্ষ ও ৭ ই মার্চ উপলক্ষ্যে রবিবার বিকাল ৩টায় স্থানীয় মরা কালনী নদীর তীর হইতে লক্ষীবাওর জলাবন‘র (সোয়াম ফরেস্ট) ভিতরে ৫ কিলোমিটার দীর্ঘ ম্যারথন অনুষ্টিত হয়। ম্যারাথন উদ্ধোধন করেন স্থানীয় সংসদ সদস্য ও সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এডঃ আব্দুল মজিদ খান।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাসুদ রানা‘র সভাপতিত্বে এ সময় উপস্থিত ছিলেন ভাইস চেয়ারম্যান হাসিনা আক্তার, সহকারী কমিশনার(ভূমি) ইফফাত আরা জামান ঊর্মি,জনাবআলী সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ শাফিউজ্জামান খান,উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্মসাধারন সম্পাদক তজোমুল হক চৌধুরী,সাংগঠনিক সম্পাদক শাহজাহান মিয়া,প্রেসক্লাব সভাপতি মোশাহেদ মিয়া। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর তত্ত¡াবধানে ও বানিয়াচং উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে অনুষ্টিত ম্যারাথনে স্থানীয় প্রশাসনের লোকজন,শিক্ষক-শিক্ষার্থী,সাংবাদিক,রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী ও স্থানীয় তরুন-যুবক, রানার গ্রæপ,নারীগন সহ সহ¯্রাধিক অংশগ্রহনকারী ম্যারাথনে অংশ গ্রহন করেছেন। বাংলাদেশের অন্যতম দ্বিতীয় জলাবন লক্ষীবাওর। প্রচার প্রচারনার অভাবে লোকচক্ষুর আড়ালে থাকায় স্থানীয়দের আহবানে ওই স্থানে ম্যারথনের স্থান নির্বাচন করা হয়েছে।

নারী-পুরুষ দুটি ভাগে অংশগ্রহনকারীদের মধ্য থেকে মোট ১২জনকে পুরস্কার প্রদান করা হয়েছে। এ ব্যাপারে বানিয়াচং উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাসুদ রানা বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকীকে স্মরণ করতে স্থানীয় ঐতিহ্যবাহী লক্ষীবাওরে ম্যারাথন অনুষ্টানের আয়োজন করা হয়েছে। সম্পূর্ণভাবে প্রকৃতির মাঝে আমাদের এই আয়োজন নিঃসন্দেহে চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে। এ ব্যাপারে সংসদ সদস্য এডঃ আব্দুল মজিদ খান বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী পালন নিশ্চই ঐতিহাসিক ঘটনা।

আমরা আজ সকলেই এই ঐতিহাসিক ঘটনার স্বাক্ষী হয়ে রইলাম।উপজেলা প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানাই নদী,সবুজ ধানক্ষেত আর প্রাকৃতিকভাবে হাওরের মাঝে গড়ে উঠা জলাবনে এই সুন্দর আয়োজন করায়।