প্রাবাস দর্পণ ডেস্কঃ

মেধা-সংস্কৃতি পরিষদের পক্ষ থেকে রাজনগরের দুই গুণী প্রবাসী সন্তান মোঃ মাহবুবুর রহমান কপিল ও রুপচাঁদ দাশ রূপক সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়।

যুক্তরাজ্য প্রবাসী মোঃ মাহবুবুর রহমান কপিল। তৎকালীন মেধাবী ছাত্র। চট্টগ্রাম বিশ্ব বিদ্যালয়ের ২৩ তম ব্যাচের ছাত্র হিসেবে ফিজিক্স-এ এমএসসি প্রথম শ্রেণিতে চতুর্থ স্থান অধিকার করেন। রাজনগর উপজেলার ফদিনাপুর গ্রামে তাঁর জন্ম। ৯০'র স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনের তুখোর ছাত্র নেতা। এমসি কলেজের ৮৭'র ছাত্র সংসদের নির্বাচিত ক্রীড়া সম্পাদক। বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের সিলেট জেলা ও এমসি কলেজ শাখার নেতা ছিলেন।

যুক্তরাজ্য প্রবাসী রুপচাঁদ দাশ রূপক প্রবাস দর্পন অনলাইন পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক। বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন সিলেট জেলার সাবেক সভাপতি। তিনি ৯০'র স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনের তুখোড় ছাত্রনেতা। রাজনগর উপজেলার ধুলিজুরা গ্রামে তাঁর জন্ম।

প্রবাসে নিজ নিজ কর্মক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠিত সাবেক এ দুই ছাত্রনেতা সম্প্রতি নাড়ীর বাঁধনের টানে দেশে এসেছেন। তাঁদের সম্মানে রাজানগরের মেধা-সংস্কৃতি পরিষদের ব্যবস্থাপনায় ১৭ নভেম্বর বিকেল ৪ঃ০০ টায় সংস্থার কার্যালয়ে এক চা-চক্র অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

সংস্থার আহবায়ক রাজনগর উপজেলার বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব অধ্যক্ষ মোঃ ইকবাল এঁর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ও আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক সংসদীয় আসন পুনরুদ্ধার আন্দোলন ও রাজনগর উন্নয়ন পরিষদ-এর সভাপতি বিশিষ্ট ব্যবসায়ী হাজী আব্দুস সালাম, আমন্ত্রিত অতিথি মাহবুবর রহমান কপিল ও রুপচাঁদ দাশ রূপক, উপজেলা কৃষক লীগ সভাপতি মাহমুদুর রহমান, সংস্থার সদস্য সচিব আকলু মিয়া চৌধুরী, সহকারী অধ্যাপক তোফায়েল আহমেদ, সহকারী অধ্যাপক শাহানারা রুবি, খছরু চৌধুরী, রেজওয়ানুল হক পিপুল প্রমুখ।

আলোচনায় অংশ নেয়া সকলেই রাজনগর উপজেলার শিক্ষা-সংস্কৃতির দৈন্যতা নিয়ে সহমত পোষণ করেন এবং প্রবাসী অতিথি দ্বয় সংস্থার নেতৃবৃন্দকে সুনির্দিষ্ট করে মেধা বিকাশের নিমিত্তে একটি প্রকল্প তৈরির অনুরোধ জানান। উনারা এই প্রকল্পে অর্থায়ন-সহ পরামর্শ ও সার্বিক সহযোগিতা প্রদান করার আশ্বাস ব্যাক্ত করেন।

আলোচনা শেষে আমন্ত্রিত প্রবাসী অতিথি দ্বয়ের হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেন সংস্থার নেতৃবৃন্দ।