ওয়াসীম আকরাম, লেবানন থেকে :

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ লেবানন কেন্দ্রীয় কমিটির ত্রি-বার্ষিকী সম্মেলন সম্পুর্ন হয়েছে। ৩০ জন কাউন্সেলরের ভোটের মাধ্যমে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনে ১৮ ভোট পেয়ে সভাপতি বাবুল মিয়া ও ২৩ ভোট পেয়ে সাধারন সম্পাদক তপন ভৌমিক নির্বাচিত হন।

এছাড়া বিনা-প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিপ্লব হোসেন সিনিয়র সহ-সভাপতি ও ইব্রাহীম খান সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন। অন্যদিকে সভাপতি প্রার্থী সুফিয়া আক্তার বেবী পেয়েছে ১১ ভোট, সাধারন সম্পাদক জামাল হোসেন পান্না পেয়েছেন ৬ ভোট। রবিবার (২৩ মে) বৈরুতে দাওরা সিআইটি কলেজের হলে প্রধান আহবায়ক মুক্তিযোদ্ধা দুলামিয়ার সভাপতিত্বে উক্ত সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন সাবেক সভাপতি বাবুল মুন্সী ও বিশেষ অতিথি ছিলেন যুগ্ন আহবায়ক মাহবুব আলম। সম্মেলন শেষে প্রধান আহবায়ক মুক্তিযোদ্ধা দুলামিয়াকে লেবানন আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির প্রধান উপদেষ্টা ঘোষণা করা হয়। এছাড়া সম্মেলনে প্রধান নির্বাচন কমিশন হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন প্রধান উপদেষ্টা মুক্তিযোদ্ধা দুলামিয়া এবং পুলিং অফিসার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন শেখ ফরিদ ভূইয়া ও মোস্তফা মন্ডল। সভাপতি প্রার্থী বাবুল মিয়ার এজেন্ট হিসেবে ছিলেন আতিকুর রহমান ও সুফিয়া আক্তার বেবীর এজেন্ট হিসেবে ছিলেন শেখ জামাল। লেবাননে দীর্ঘ প্রায় ২২ বছরের রাজনৈতিক ইতিহাসে এই প্রথমবারের মত কাউন্সিলদের ব্যালট মাধ্যমে সুষ্টু একটি নির্বাচন উপহার দিতে পেরে অত্যন্ত আনন্দিত আহবায়ক কমিটির নেতৃবৃন্দরা।

তারা আশাবাদী নির্বাচিত নেতারা লেবাননে মাটিতে দলকে ঠেলে সাজিয়ে একটি শক্তিশালী পূণাঙ্গ কমিটি উপহার দিবে। পাশাপাশি জননেত্রী শেখ হাসিনার হাত শক্তিশালী করার লক্ষ্যে কাজ করবে। লেবাননের বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ সম্মেলন পর্যবেক্ষণ করেন। প্রবাসী বন্ধু মহলের উপদেষ্টা শরিফ আহমেদ ও কুরবান আলী জানান, নির্বাচনী পরিবেশ খুবই সুন্দর ও উৎসব মুখর সহ ভোট গ্রহনের পদ্ধতিও স্বচ্ছ ছিল । সকল কাউন্সিলদের হাসিমুখে আনন্দের সহিত তাদের ভোট দিতে দেখা গিয়েছে। লেবানন আওয়ামী লীগের সম্মেলনটি মাইল ফলক দৃষ্টান্ত স্থাপন করে বলে মনে করেন লেবাননের রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতারা।