শরীফুল্লাহ কায়সার সুমন, সাতক্ষীরা প্রতিনিধিঃ

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় এবার কৃষককে গলা কেটে হত্যা করেছে দুবৃত্তরা। নিহতের নাম মোসলেম উদ্দীন (৬০)। তিনি ওই গ্রামের মৃত নঈম উদ্দীন বিশাসের ছেলে। বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার দেয়াড়া গ্রামের বিশাসপাড়া থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

কলারোয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খায়রুল কবির বলেন, সম্প্রতি কৃষক মোসলেম উদ্দীনের শ্যালক অসুস্থ থাকায় তার স্ত্রী সাতক্ষীরায় অবস্থান করছেন। বাড়িতে কেউ না থাকায় মোসলেম উদ্দীন মঙ্গলবার রাতের খাবার খেয়ে বাড়িতে ঘুমিয়ে পড়েন। এরপর রাতের কোন এক সময় দূর্বত্তরা তাকে হত্যা করে মরদেহ খাটের উপর ফেলে রেখে যায়।

ওসি খায়রুল জানান, মাঠে ঘাস খেতে রাখা গরু ফেরত নিয়ে সন্ধ্যায় তার (বাড়ির পাশে বিয়ে দেয়া) মেয়ে তার বাবার বাড়িতে যান বাবার সঙ্গে দেখা করতে। বাবার বাড়িতে গিয়ে তার বাবাকে অনেক বার ডেকে না পাওয়ায় সে ক্লপসিক্যাল গেটের তালা ভেঙে ভিতরে প্রবেশ করে তার বাবার গলাকাটা মরদেহ খাটের উপর লেপের ভিতরে পড়ে থাকতে দেখেন। স্থানীয়রা বিষয়টি পুলিশে খবর দেন। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে তার মরদেহ উদ্ধার করেন। ওসি খায়রুল আরো জানান, নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে। এছাড়া হত্যার রহস্য উন্মোচনে পুলিশ ইতিমধ্যে কাজ শুরু করেছেন। উল্লেখ্য, এই কলারোয়াতেই গত ১৫ অক্টোবর একই পরিবারের ভাই ভাবিসহ চারজনকে গলা কেটে হত্যা করে আপন ছোট ভাই।