মেহেদী হাসান,মালয়েশিয়া প্রতিনিধিঃ

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি)মালয়েশিয়া ও অঙ্গ সংগঠনের উদ্যগে শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের মুক্তিযুদ্ধের রাষ্ট্রীয় খেতাব বাতিলের সিদ্ধান্তে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে ।

গত শুক্রবার (১২ ফেব্রুয়ারি) কুয়ালালালামপুরে একটি হল রুমে মালয়েশিয়া বিএনপির সিনিয়র নেতা মোঃ শহিদুল্লাহ শহিদের সভাপতিত্বে, মালয়েশিয়া বিএনপির যুগ্নো-সাধারণ সম্পাদক ওয়ালি উল্লাহ জাহিদ ও মালয়েশিয়া বিএনপি যুবদলের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম খানের যৌথ সঞ্চলনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে অনলাইন ভার্চুয়ালে অংশ গ্রহণ করেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান, চুয়াডাঙ্গা ১ আসনের সাবেক এমপি,কৃষকদলের আহ্বায়ক মোঃ শামসুজ্জামান দুদু। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মালয়েশিয়া বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ মাহবুব আলম শাহ,ও জাসাস কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সম্পাদক প্রফেসার শাহ আলম।

প্রতিবাদ সভায় উপস্থিত ও অনলান ভার্চুয়ালে অংশ গ্রহন কারী নেতারা তাদের বক্তব্যে বলেন ‘আল জাজিরার সংবাদ ধামাচাপা দিয়ে মানুষের মনোযোগ অন্যদিকে ফেরাতেই জিয়াউর রহমানের বীর উত্তম খেতাব বাতিল নিয়ে আওয়ামী লীগ নাটক শুরু করেছে। তাকে বিতর্কিত করার অপচেষ্টা করা হচ্ছে। কিন্তু তাদের ষড়যন্ত্র দেশের মানুষ সফল হতে দেবে না।’ ষড়যন্ত্র-চক্রান্ত করে ইতিহাস থেকে জিয়ার নাম মুছে ফেলা যাবে না ‘আওয়ামী লীগ ষড়যন্ত্র করে জিয়াউর রহমানের নাম মানুষের মন থেকে মুছে ফেলতে পারবে না। যারা মনে করেন শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের বীর উত্তম খেতাব বাতিল করা হলেই তাকে মানুষের মন থেকে মুছে দেয়া যাবে, তারা বোকার স্বর্গে বাস করছেন।’ যারা ক্ষমতায় আছে তারা মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসকে তাদের ইচ্ছামতো লেখার চেষ্টা করছে। আজকে বিশেষ করে নতুন প্রজন্মকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করা হচ্ছে এবং মুক্তিযুদ্ধের যে মূল ইতিহাস তা বিকৃত করার চেষ্টা করা হচ্ছে। ৫০ বছরে মুক্তিযুদ্ধের যে আকাঙ্ক্ষা এবং স্বাধীনতার জন্য আমাদের যে প্রত্যাশা ছিল, সেই ক্ষেত্রগুলোতে কারা কী অবদান রেখেছে, কারা কী ক্ষতি করেছে সেটা সম্পর্কেও বর্তমান প্রজন্মকে ভুল তথ্য দেয়া হচ্ছে।’ তারা আরও বলেন,মুক্তিযুদ্ধে মূল আকাঙ্ক্ষা ছিল একটি গণতান্ত্রিক সরকার, গণতান্ত্রিক পরিবেশ। আজকে গণতন্ত্র দেশে নেই।

বাংলাদেশে বারবার গণতন্ত্র ভুলুণ্ঠিত হয়েছে, লুটেরা অর্থনীতি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে, সামাজিক অবিচার প্রতিষ্ঠিত হয়েছে, অন্যায় প্রতিষ্ঠিত হয়েছে, ন্যায়-অন্যায়ের কাছে পরাজিত হয়েছে।’ এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন মালয়েশিয়া বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতা জনাব মিনহাজ মন্ডল,মোঃ জাকির হোসেন,শেখ মোঃ সেলিম, ফারুক হোসেন,শামিম রেজা, আবুল কাশেম নয়ন,মোঃ জালাল হোসেন,মোঃ নাজমুল হাসান,আব্দুর রহমান ভুইয়া,মঞ্জরুল ইসলাম মঞ্জ,জনাব রহমতুল্লাহ, জনাব শাহিন,আব্দুল আজিজ মোল্লা,আলহাজ্ব আলী হোসেন,নাজমুল ইসলাম,কামরুজ্জামান সালেহ সাদেক,মোঃ নাসির,মো হিরোন সহ আরও অনেকেই।