মোঃমেহেদী হাসান,মালয়েশিয়া প্রতিনিধিঃ

মালয়েশিয়ার কেলানা জায়া লাইনে দুইটি লাইট রেল ট্রানজিট (এলআরটি) ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়েছে। এতে গুরুতর ৪৭ জন যাত্রীসহ আহত হয়েছেন ২১৩ জন। তবে আহতদের মধ্যে কোনো বাংলাদেশী আছে কিনা তা এখনো জানা যায়নি। আহতদের সবাইকে চিকিৎসার জন্য কুয়ালালামপুর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

সোমবার (২৪ মে) রাত ৯টার দিকে কেএলসিসির ভূগর্ভস্থ এলআরটি রেলওয়ে স্টেশনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। মালয়েশিয়া গণমাধমে জানা যায় , আহতদের উদ্ধার ও জরুরি সেবা চলছে এবং সকলকে শান্ত থাকার এবং নির্দেশাবলী অনুসরণ করার আহ্বান জানানো হয়েছে। গণমাধ্যমে আরো জানা যায় কেএলসিসি এলআরটি স্টেশন থেকে কেজি বারু স্টেশনের দিকে যাওয়া দুটি এলআরটি ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।

এতে দুই শতাধিক যাত্রী আহত হয়েছেন। আহতদের সহায়তা করার জন্য পুলিশ এবং প্যারামেডিকরা ঘটনাস্থলে রয়েছে। দুর্ঘটনার পর কেলানা জায়ার সঙ্গে এলআরটি যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়। উদ্ধার কাজ শেষ হলে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হবে বলেও জানানো হয়। ট্রেন দুর্ঘটনার বিষয়ে দেশটির ফেডারেল টেরিটরিজ মন্ত্রী তান শ্রী আনুয়ার মুসা বলছেন, নিয়ন্ত্রণ স্টেশনে কোনও গাফিলতি হয়েছে কিনা সেটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। জননিরাপত্তার বিষয়টিকে বরাবরই অগ্রাধিকার দেওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেন তিনি।

এ ঘটনার পর প্রধানমন্ত্রী তান সেরী মহিউদ্দিন ইয়াসিন তাৎক্ষণিকভাবে এক বিবৃতিতে আহতদের দ্রুত সুচিকিৎসা এবং ট্রেন দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে তদন্ত কমটি গঠন করার নির্দেশ দিয়েছেন।