হে বিরহী
নয়নও নীরে
ঝরিছে বারি
শুধুই তোমার তরে...

জানি সময় হবেনা
বারেক ফিরিয়া
দেখিবারে তায়.....

আছি কাছাকাছি
বুঝি তাই দলিয়া যাও
মম আবেগ,
অভিমান সম,
শত কথামালা
শুকালো
নিরব অভিমানে
কহিতে নাহি পারি......

জানি সময় হবেনা
শুনিবারে সে বন্দী
মনের বাণী...

মনের মূকুরে
মঞ্জুরীছিল যে বাসনা
আঁধারে বুকে লুটাইয়া পড়িল
পরশিতে না পারি
তোমার সুকঠিন
হৃদয়খানি ।

হে বিরহী
জানলেনা তুমি
কি তীব্র মধুর যাতনা লয়ে
বুকের পাজরে
বাঁধি তব নাম
চিরতরে তোমারেই
যেতে চাহি আজ ছাড়ি......।

হে বিরহী....
কুসুমের মত
ঝুরিয়া পড়িব যবে
অন্তরও তব চারিপাশে
অনন্ত বেদনায়
আমারেই খুঁজিবে...

বুঝিবে কি সেদিন
ঝরা কুসুমের
মৃত প্রান
অশ্রুজল
তোমারই সে ব্যথায়
আঁখি নীরে তব
কেমনে ঝরিছে নিরবে...?

বুঝিবে কি সেদিন
বিরহী মোর
কেন মেঘাচ্ছন্ন
হইল নীল আসমান
কেন বৃষ্টির জল
ভিজাল শুকনো মাটির প্রান......?